ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে কতদিন লাগে

ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে কতদিন লাগবে?

নতুনদের অনেকেই ওয়ার্ডপ্রেস শিখে আয় করার উদ্দেশ্যে এর উপর কাজ শিখতে ইচ্ছে পোষণ করেন। তাদের মধ্য হতে প্রায় মানুষই জানতে চান ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে কতদিন লাগে, কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস শিখব ইত্যাদি। এই আর্টিকেলটি তাদের জন্যই তৈরি করেছি।

আমি ব্লগার নকীব, ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে কাজ করছি প্রায় ৭ বছরের বেশী সময় ধরে। আমার অভিজ্ঞতা থেকে আজ আপনি আপনাদেরকে বলে দেব ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে আপনার কতদিন সময় লাগতে পারে।

আপনি যদি ওয়েব ডেভেলমমেন্ট এর উপর কাজ করতে আগ্রহী হয়ে থাকেন, তবে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

ওয়ার্ডপ্রেস কি কেন শিখব?

অনেকেই হয়ত ওয়ার্ডপ্রেস কি তা বুঝেন না। ওয়ার্ডপ্রেস হলো বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় CMS সফটওয়্যার।

এই সফটওয়্যারটি ওয়েবসাইট তৈরির কাজে ব্যবহার করা হয়।

উইকিপিডিয়ার তথ্য অনুযায়ী  ইন্টারনেটের ৪.৭ শতাংশ ওয়েবসাইট WordPress দ্বারা তৈরি করা হয়েছে।

ইভেন আমাদের ওয়েবসাইটটিও WordPress CMS দ্বারা তৈরি।

আপনি যদি ওয়েব ডেভেলপমেন্টের উপর কাজ করে অনলাইন থেকে ইনকাম করতে চান, তবে শুরুতেই WordPress কে টার্গেট করা খুবই জরুরি।

কেননা, WordPress এমনই একটি জনপ্রিয় CMS প্লাটফর্ম, যা অন্য সকল CMS থেকে অনেক বেশী চাহিদা সম্পূর্ণ।

বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশেই WordPress এর যথেষ্ট গ্রাহক রয়েছে।

যা আপনাকে কাজ পেতে অনেক সাহায্য করবে।

তাছাড়া, ওয়ার্ডপ্রেস এর উপর যথেষ্ট রিসোর্স ইন্টারনেটে বিদ্যমান।

যে কারণে কখনও যদি WordPress নিয়ে সমস্যা অনুভব করেন তবে দ্রুতই এর সমাধান পাবেন।

এগুলোর ছাড়াও ওয়ার্ডপ্রেস শেখার আরো অনেক কারণ রয়েছে। যা পর্যায়ক্রমে আমি আলোচনা করবো।

ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে কতদিন লাগে?

শুরুতেই আপনাকে প্রশ্ন করি, আপনি ওয়ার্ডপ্রেস এর কতটুকু শিখতে চান বা জানতে চান?

প্রশ্নটি এজন্যই করলাম, আমাদের সকলেই WordPress কে শিখে একই ধরণের কাজ করবো না।

মনে করেন আপনি ওয়ার্ডপ্রেস শিখবেন ব্লগিং করার জন্য, বা উ-কমার্স এর মাধ্যমে অনলাইনে ব্যবসা করার জন্য, অথবা ওয়ার্ডপ্রেসের উপর সাধারণ মানুষকে সহযোহিতা করার জন্য।

এমন আরো বিভিন্ন নিয়তে আমরা WordPress শিখতে পারি।

এই বিষয়টিকে সামনে রেখে ওয়ার্ডপ্রেস শিক্ষাকে ৩ টি স্তরে বিভিক্ত করা যায়।

  • বেসিক ওয়ার্ডপ্রেস,
  • মাধ্যমিক ওয়ার্ডপ্রেস,
  • এডভান্স ওয়ার্ডপ্রেস ইত্যাদি।

এর স্তর গুলোর উপর নির্ণয় করতে হবে ”ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে কতদিন লাগে বা লাগবে”।

(১) বেসিক ওয়ার্ডপ্রেস

ওয়ার্ডপ্রেসের বেসিক বিষয়বস্তু একজন নতুন ইউজারকে জানার জন্য ৮-০ দিন সময় লাগতে পারে।

বেসিক ওয়ার্ডপ্রেস বলতে একটি WordPress ওয়েবসাইটে কিভাবে লগইন করতে হয়, ডেশবোর্ড পরিচিতি, পোস্ট করার নিয়ম, প্লাগইন বা থিম ইনিস্টল ইত্যাদি ইত্যাদি।

এই বিষয়গুলো বেসিক WordPress এর মধ্যে যায়।

আপনি যদি এই ধরণের ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে চান তবে ৮-০ দিন এর বেশী সময় লাগবে না।

খুব বেশী মনোযোগ দিয়ে শিখতে হয়ত ৫ দিনেই ওয়ার্ডপ্রেস এর বেসিক বিষয়বস্তু শিখে যাবেন।

এই ধরণের WordPress অভিজ্ঞতা থেকে আপনি ব্লগিং বা ই-কমার্স জাতীয় ওয়েবসাইটে কাজ শুরু করতে পারবেন।

(২) মাধ্যমিক ওয়ার্ডপ্রেস

ওয়ার্ডপ্রেস অত্যন্ত ইউজার ফ্রেন্ডলি হওয়ার কারণে বর্তমানে প্রায় মানুষই ওয়ার্ডপ্রেসের বিভিন্ন বিষয়াদি জানেন।

ওয়ার্ডপ্রেস এর উপর মাধ্যমিক পর্যায়ের অভিজ্ঞতা হলো এমন, যেই অভিজ্ঞতায় আপনি যে কোন ধরণের ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ম্যানেজ করতে পারবেন।

বিষয়টি আরেকটু স্পষ্ট করা যাক-

একজন মাধ্যমিক পর্যায়ের ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহারকারী ওয়েবসাইটে যে কোন প্লাগইন বা থিম ইনিস্টল করা থেকে শুরু করে কাস্টোমাইজেশনের কাজ করতে পারে।

গুগল এনালিইটিক্স, গুগল সার্চ কনসোল, এসইও এবং সিকিউরিটি বিষয়ক বিষয়বস্তুর কাজও মাধ্যমিক পর্যায়ের ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহারকারীরা করতে পারে।

তাছাড়া, ওয়েবসাইটের ছোট ছোট সমস্যার সমাধান করতে পারে এমন ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহারকারীদেরকে মাধ্যমিক লেভেলের ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহারকারী বলা যায়।

এই ধরণের ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে আপনাকে একটি প্রাক্টিক্যাল অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে।

অর্থাৎ, ওয়ার্ডপ্রেসের উপর দীর্ঘ সময় কাজ করতে হবে।

নাহয় আপনি ওয়ার্ডপ্রেস সংক্রান্ত সমস্যা গুলো প্রাক্টিক্যাল ভাবে পাবেন না, আর সমস্যা গুলো না পেলে সমাধান করার প্রক্রিয়া শিখবেন কিভাবে?

এই ধরণের মাধ্যমিক পর্যায়ের ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে ৬-২ মাস লেগে যেতে পারে।

কোন ক্ষেত্রে এর চেয়েও অধিক সময় লাগতে পারে।

তবে আপনি যদি শুধুমাত্র প্লাগইন এবং থিম কাস্টোমাইজেশনের কাজ শিখতে চান, তবে হয়ত ৩-৬ মাস লাগতে পারে।

মনে রাখবেন, প্লাগইন এবং থিম কাস্টোমাইজেশনের বিষয়টি মাসেও আয়ত্ব করা সম্ভব।

তবে বেশী সময় দিয়ে শিখলে অভিজ্ঞতার মধ্যে খুবই চমৎকার একটি ইমপ্রুভমেন্ট দেখতে পাবেন।

(৩) এডভান্স ওয়ার্ডপ্রেস

ওয়ার্ডপ্রেস বিষয়ক যারা পরিপূর্ণ জ্ঞান রাখেন তাদেরকে এডভান্স ওয়ার্ডপ্রেস অভিজ্ঞতার স্তরে রাখা যায়।

এই ধরণের অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য দীর্ঘ সময় ওয়ার্ডপ্রেস শেখার কাজে ব্যয় করতে হয়।

এটি মূলত ওয়েব ডিজাইন বা ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ডেভেলপমেন্ট এর পর্যায়ের কাজ।

মনে করেন, কেউ যদি HTML, CSS, JavaScript, PHP ইত্যাদি ধরণের ল্যাঙ্গুয়েজ জানে এবং WordPress এর বিভিন্ন প্লাগইন এবং থিম তৈরি করতে পারে তাদেরকে এডভান্স ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহারকারী বলা যায়।

একজন এডভান্স ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহারকারী সাধারণত WordPress বিষয়ক প্রায় সমস্ত জ্ঞানের অধিকারী।

প্লাগইন এবং থিম তৈরির পাশাপাশি তারা যে কোন থিমের ডিজাইন কোডিংয়ের মাধ্যমে পরিবর্তন করে নিতে পারে।

তাছাড়া, সিপ্যালেন এবং ওয়েবসাইট সংক্রান্ত সকল সমস্যার সমাধান করতে পারে।

ইতোমধ্যেই বলেছি ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে আমি ৭ বছরের বেশী সময় ধরে কাজ করছি।

তবে এখনো আমি নিজেকে পরিপূর্ণ এক্সপার্ট ভাবতে পারি না।

আপনাকে হয়ত এডভান্স ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহারকারী হতে ৭ বছর সময় লাগবে না।

আপনি যদি যথাযথ ভাবে WordPress এর এডভান্স বিষয়াদি শেখার জন্য ২ বছর সময় এর পেছনে ইনভেস্ট করতে পারেন, তবেই হয়ত আপনি ওয়ার্ডপ্রেস এর এডভান্স শিখে নিতে পারবেন।

তবে মনে রাখবেন, HTML, CSS, JavaScript, PHP ইত্যাদি ধরণের ল্যাঙ্গুয়েজ গুলোতে যতবেশী দক্ষ হতে পারবেন, তত সহজেই ওয়ার্ডপ্রেস এর গভীরে কাজ করতে পারবেন।

ওয়ার্ডপ্রেস মূলত PHP ল্যাঙ্গুয়েজ দিয়ে তৈরি।

তাই HTML, CSS, JavaScript শেখার পাশাপাশি PHP ল্যাঙ্গুয়েজকে সবচেয়ে বেশী গুরুত্ব দিয়ে শিখতে হবে।

ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে কতদিন লাগে আশাকরি উত্তর পেয়েছেন। এখন প্রশ্ন হলো ওয়ার্ডপ্রেস কিভাবে শিখবেন?

ওয়ার্ডপ্রেস কিভাবে শিখব?

ওয়ার্ডপ্রেস শেখার জন্য বাংলাদেশ এবং পার্শবর্তী দেশ ইন্ডিয়াতে বিভিন্ন ধরণের প্রশিক্ষণ পদ্ধতি রয়েছে।

প্রশিক্ষণ পদ্ধতি গুলোর মধ্যে আবার ফ্রি এবং পেইড পদ্ধতিও রয়েছে।

আবার প্রশিক্ষণ বিভিন্ন টাইপের হয়।

ধারাবাহিক ভাবে কয়েকটি বিষয় নিচে তুলে ধরা হলো।

ওয়ার্ডপ্রেস শিখুন

ওয়ার্ডপ্রেস এর বেসিক থেকে শুরু করে এডভান্স পর্যন্ত আপনি বিভিন্ন টাইপের কোর্স করে শিখতে পারবেন।

উদাহরণস্বরূপঃ

  • ভিডিও কোর্স,
  • লাইভ কোর্স,
  • আর্টিকেল কোর্স
  • ওয়ার্ডপ্রেস শিক্ষা বই ইত্যাদি।

এই বিষয়গুলোর ছোট্ট বিশ্লেষণ করলে হয়ত আপনারা সহজেই বুঝবেন।

() ভিডিও কোর্স গুলো সাধারণত এমন ভাবে তৈরি করা হয়, যেখানে ওয়ার্ডপ্রেস এর প্রায় বিষয়গুলো নিয়েই আলোচনা থাকে।

ভিডিও কোর্স বলতে ধারাবাহিক কিছু ভিডিও টিউটোরিয়াল যেখানে কাঙ্খিত কোন বিষয়ের লেকচার থাকে।

ভিডিও কোর্স গুলোকে দুই ভাগে ভাগ করা যায়।

যেমন, ফ্রি এবং পেইড।

ওয়ার্ডপ্রেস শিক্ষার ফ্রি কোর্স গুলো সাধারণত ইউটিউবে পাবেন।

আর ওয়ার্ডপ্রেস শিক্ষার পেইড কোর্স গুলো বিভিন্ন সংস্থার ওয়েবসাইট থেকে আপনাকে সংগ্রহ করে নিতে হবে।

পেইড কোর্স গুলো টাকার দিয়ে কিনতে হয়।

আপনি চাইলে ইউটিউব থেকে ফ্রি কোর্স করেই ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে পারবেন।

তবে ফ্রি মেথর্ডে আপনি শেখার ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারবেন না।

এজন্য আমি পার্সোনালি রিকোমেন্ট করি সামান্য টাকা খরচ হলেও ওয়ার্ডপ্রেস কোর্স পেইড মেথর্ডে সংগ্রহ করুন।

প্রশ্ন জাগতে পারে এই পদ্ধতিতে ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে কতদিন লাগে?

উত্তরঃ ৩ মাস থেকে ২ বছর । যেখানে শুরু থেকে এডভান্স শেখার ব্যবস্থা থাকবে।

(২) প্রায় সব ধরণের লাইভ কোর্স গুলো সাধারণত পেইড হয়। অর্থাৎ, টাকার বিনিময়ে কোর্স করানো হয়।

লাইভ কোর্স গুলো ২ প্রকার।

  1. সরাসরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে গিয়ে কোর্স করা,
  2. ইন্টারনেটের সাহায্যে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে কোর্স করা।

এই দুটি বিষয় হয়ত বিশ্লেষণ করার প্রয়োজন নেই। আপনারা এই বিষয়ে জানেন। [ না জানলে অবশ্যই কমেন্ট করবেন ]

লাইভ কোর্স গুলোরি মাধ্যমে ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে কতদিন লাগবে তা প্রতিষ্ঠান বা প্রশিক্ষক এর উপর নির্ভর করে।

কারণ, প্রতিষ্ঠান বা প্রশিক্ষক থেকে সরাসরি কোর্স করার মানে হলো তারা যেই সময় নির্ধারণ করে দেবেন আপনাকে সেভাবেই যেতে হবে।

এই ধরণের কোর্স ৩-৬ মাস সময় নির্ধারণ করে দেওয়া হলেও এই সময়ে আপনাকে কাজের উপযোগী করে তুলতে পারবেন না।

সকলেই জানেন ইন্টারন্যাশানাল ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে এখন অনেক বেশী কমপিটিশন।

আপনি সেইসব মার্কেটপ্লেসে কাজ করার জন্য অনেক বেশী দক্ষতা নিয়েই প্রবেশ করতে হবে। নাহয় কাজ পাওয়া দুষ্কর।

এখন অনেকেই জানতে চাইবেন তাহলে লাইভ কোর্স করে ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে কতদিন লাগেবে?

উত্তরঃ সাধারণত প্রশিক্ষক বা প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গুলো সরাসরি ভাবে ওয়ার্ডপ্রেস কোর্স করাতে ৩-৬ মাসের সময় নেয়।

তবে কোর্স করার পর আপনাকে এই বিষয়ে পাকাপোক্ত হতে আরো বছর সময় দেওয়া উচিত।

(৩) ওয়ার্ডপ্রেস শেখার খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি মাধ্যম হলো বিভিন্ন ওয়েবসাইটের আর্টিকেল পড়া।

আর্টিকেল কোর্স গুলো সাধারণত ফ্রি হয়। যদিও অনেক ক্ষেত্রে পেইড আর্টিকেল থাকে। তবে বেশীর ভাগ আর্টিকেলই ফ্রি।

আমাদের কথাই বলি। আপনি যদি আমার ওয়ার্ডপ্রেসের উপর তৈরি আর্টিকেল গুলো নিয়মিত পড়েন তবে আমি আশাবাদী আপনি ওয়ার্ডপ্রেসের অনেক বিষয়াদি জানতে পারবেন।

তাছাড়া, ইন্টারনেটে আরো অগণিত ওয়েবসাইট আছে যারা ওয়েব ডিজাইন এবং ওয়ার্ডপ্রেস শিক্ষা বিষয়ক বিভিন্ন টিপস শেয়ার করে।

তাদের আর্টিকেলও পড়তে পারেন। আপনি যদি এভাবে কিছুদিন কন্টিনিউ করেন তবে আপনি ওয়ার্ডপ্রেস সম্পর্কিত বিভিন্ন জ্ঞান আয়ত্ব করে নিতে পারবেন।

(৪) বাজারে ওয়ার্ডপ্রেসের উপর বিভিন্ন বই পাওয়া যায়।

তাছাড়া, ইন্টারনেটে ওয়ার্ডপ্রেসের উপর অগণিত pdf রয়েছে। যেগুলো সংগ্রহ করে আপনি পড়তে পারেন।

ওয়ার্ডপ্রেস শিক্ষা বই গুলো ক্রয় করার সময় বইয়ের ভেতর অংশ দেখে নেওয়া উচিত। –

কেননা, নতুন হিসেবে আপনার কাঙ্খিত বইটিতে যদি টিউটোরিয়াল বা ছবি আকারে ওয়ার্ডপ্রেস এর ফিচার সমূহ সম্পর্কে আলোচনা পান, তবে আপনার জন্য এটি দারুণ একটি এডভান্টেজ তৈরি করবে।

যে কোন ওয়ার্ডপ্রেস এক্সপার্ট এর বই ক্রয় করতে পারেন, কোন সমস্যা নেই।

আমাদের শেষ কথাঃ

প্রিয় পাঠক, আমি চেষ্টা করেছি “ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে কতদিন লাগে এবং কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস শিখবেন” তার উপর বিস্তারিত আলোচনা করার জন্য।

আপনি যদি ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে চান তবে এখন থেকেই শেখা শুরু করে দিন।

শুরুটা যদি পেইড ভাবে না করতে পারেন তবে ওয়ার্ডপ্রেসের উপর ইউটিউব ভিডিও এবং ওয়েবসাইটের আর্টিকেল গুলো পড়ুন।

এভাবেই যদি ২-৩ মাস কন্টিনিউ করতে পারেন তবে ওয়ার্ডপ্রেসের অনেক বিষয় আপনি ফ্রিতেই শিখে যাবে।

আর আপনার যদি ওয়ার্ডপ্রেস কোর্স করার বাজেট থাকে, তবে শুরুটা পেইড কোর্সের মধ্য দিয়েই করুন।

আপনি যেভাবেই ওয়ার্ডপ্রেস শিখেন না কেন, আপনাকে প্রচুর পরিমাণে প্রাক্টিস করতে হবে।

যত বেশী প্রাক্টিস করবেন ততই আপনার দক্ষতা বাড়বে।

আর দক্ষতা বাড়াতে পারলে যে কোন জায়গায় কাজ করার সুযোগ পাবেন ইনশাআল্লাহ।

“ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে কতদিন লাগে এবং কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস শিখবেন” এই বিষয়ে যদি আপনার কোন প্রশ্ন থাকে, তবে অবশ্যই কমেন্ট করুন। ধন্যবাদ

NAZIRUL ISLAM NAKIB

যত জ্ঞান-ধন করেছি অর্জন জীবনের প্রয়োজনে,
তার সবটুকুই বিলাতে চাই সৃষ্টির কল্যাণে।

Add comment

error: Content is protected !!