বাজেট মনিটর - কম দামে ভালো মনিটর

2022 সালের সেরা ৫টি কম দামে ভালো মনিটর

কম্পিউটারের খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং অপরিহার্য একটি যন্ত্রাংশের নাম মনিটর। কম্পিউটার মেশিন প্রসেসিং করে যে আউটপুর্ট প্রদর্শন করে তা মূলত আমরা মনিটরের মধ্যেই দেখতে পাই। কিন্তু কম্পিউটার মার্কেটে যন্ত্রাংশের দাম লাগামহীন থাকায় বাজেট বিল্ডারদের জন্য মনিটর সিলেক্ট করাটা বর্তমান সময়ে অনেকটা চ্যালেঞ্জিং ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই সকল বাজেট বিল্ডাররাই কম দামে ভালো মনিটর পেতে মরিয়া হয়ে উঠেছে।

যেই মনিটর গুলো একসময় দশ হাজার টাকার আশেপাশে পাওয়া যেতো, সেই মনিটর গুলো বর্তমানে পনেরো হাজার টাকা ছাড়িয়েছে। এখানেও থেমে থাকছে না। বাংলাদেশের বাজারে কম্পিউটার যন্ত্রাংশের দাম আস্তে আস্তে আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে। যা অনেকটা লাগামহীন বলা যায়।

বাংলাদেশের কম্পিউটার ইউজারদের প্রায় ৯৫% মানুষই বাজেট বিল্ডার। তাই বাজেটে ভালো মনিটর নেওয়াটা আমাদের প্রত্যেকের জন্যই অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু অপ্রিয় সত্যকথা হলো পছন্দের প্রায় প্রতিটি মনিটরই আমাদের বাজেটের সীমা অতিক্রম করে ফেলেছে।

বর্তমানে কম্পিউটার ব্যবহারকারীদের অধিকাংশই ফ্রিল্যান্সিং বা ওয়ার্কস্টেশনের জন্যই কম্পিউটার বিল্ড করে। দিনশেষে আমাদের মতো কম্পিউটার ইউজারদের জন্য কম্পিউটার যন্ত্রাংশের মূল্যবৃদ্ধি স্বপ্ন পূরণের জন্য বড় একটি বাঁধা।

কম্পিউটার যে কোন কনফিগারেশনের হোকনা কেন, মনিটর যদি দেখতে ভালো না লাগে তবে কাজে মন বসানো অনেক কষ্টকর। তাই আমাদের মতো বাজেট বিল্ডারদের সুবিধার্থে চমৎকার ফিচার বিশিষ্ট বেশ কয়েকটি কম্পিউটার মনিটর রিভিউ করেছি।

কম দামে ভালো মনিটর

বাজেট মনিটর গুলো মূলত ৯ ইঞ্চি থেকে ২৪ ইঞ্চিরই বেশী হয়। পরিসংখ্যান করলে দেখা যাবে যে, বাজেট বিল্ডাররা ২২ ইঞ্চি এবং ২৪ ইঞ্চি মনিটরই সবচেয়ে বেশী ব্যবহার করে।

আমি এরই ভিত্তিকে ৫ টি মনিটর আপনাদের সামনে তুলে ধরবো। যেগুলো ৯ ইঞ্চি থেকে ২৪ ইঞ্চি এর ভেতরেই হবে। আবার বাজারের অন্যান্য মনিটর গুলোর তুলনায় আশাকরি এগুলো ভালো এবং আপনাদের পছন্দ হবে ইনশাআল্লাহ।

, ACER K202HQL

Brand name: Acer
Screen Size: 19.5″ ইঞ্চি
Resolution: (1366 x 768)
HD Display
Display Type: Backlight LED
Refresh Rate: 60Hz
Panel Type: TN (Twisted
Nematic Film)
Brightness: 200 cd/m²
Response Time: 5 ms
Audio/
Video Features:
Flicker Free
Connectivity: VGA
Manufacturing
Warranty:
01 Years
Price: (দাম) 12,500/- টাকা

কম দামে ভালো মনিটরগুলোর মধ্যে Acer এর এই ফুল এইচডি রেজুলেশনের LED-ব্যাকলিট মনিটরটি বেশ বাজেট ফ্রেন্ডলি। এই মনিটরটি 19.5 ইঞ্চি। তবে এটাকে 20 ইঞ্চি বলা হয়।

মনিটরটি বর্ডারলেস না হলেও এটি দেখতেও বেশ সুন্দর। এই বাজেটে এটি একটি ভালো মনিটর। 5 ms রেসপন্স টাইম এবং 60Hz রিফ্লেশ রেটের ACER K202HQL এই মডেলের মনিটরটি ইতোমধ্যেই অনেক সেল হয়েছে।

মনিটরটির বিশেষত্ব হলো অ্যাডাপটিভ কন্ট্রাস্ট ম্যানেজমেন্টের মাধ্যমে আপনি ব্যতিক্রমী কালার সিলেক্ট করতে পারবেন। এতে ছবি ও ভিডিও দেখার সময় চমৎকার অনুভূতি অনুভব করবেন।

Acer এর এই মনিটরে ComfyView ফিচারটি থাকার কারণে ডিসপ্লে প্রতিফলন প্রতিরোধ করে, এতে করে মনিটর ব্যবহারে চোখের আরাম পাওয়া যায়।

তবে মনিটরটি একটি দুর্বলতা হলো এটিতে কোনো HDMI Port নেই। শুধু VGA Port এর মাধ্যমে কম্পিউটারের সাথে কানেক্ট করতে হবে।

ACER K202HQL মডেলের মনিটরটিতে ০ বছরের ম্যানুফ্যাকচারিং ওয়ারেন্টি রয়েছে।

২, ViewSonic VA2201-H

Brand name: ViewSonic
Screen Size: 22-inch
(Full HD VA Monitor)
Resolution: FHD

(1920 x 1080 pixels)

Refresh Rate: 60Hz
Response Time: 5ms GTG
Brightness: 250 cd/m² (typ)
Viewing Angle: 178º horizontal,

178º vertical

Color Support: Colors: 16.7M
Color Space
Support:
8 bit true
Connectivity: HDMI (1x HDMI 1.4),
VGA (1x VGA)
Audio Jack: 1x 3.5mm Audio Out
Audio এবং

Video Features:

Low Blue Light

এবং Flicker Free

Manufacturing
Warranty:
3 years
Price: (দাম) 13,500/- টাকা

ViewSonic VA2201-H হলো একটি 22″ ইঞ্চি সম্পূর্ণ HD মনিটর। এটিতে HDMI এবং VGA ইনপুট রয়েছে। ব্যবসায় বা বাড়িতে ব্যবহারের জন্য মনিটরটি বেশ উপযোগী।

বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী এবং অত্যাশ্চর্য ইমেজ কোয়ালিটি প্রদান করে। এই মনিটরটি ছয়টি ভিউমোড প্রিসেট প্রদান করে যা বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশনে অপ্টিমাইজড স্ক্রিন পারফরম্যান্স খুবই ভালো।

5ms রেসপন্স টাইম এবং 60Hz রিফ্লেশ রেটের এই মনিটরটি গেমের জন্যও ব্যবহার করা যেতে পারে। এছাড়াও, মনিটরটিতে আই-কেয়ার প্রযুক্তি ব্যবহার করার ফলে চোখের উপর খুব বেশী চাপ পড়ে না।

মনিটরটি দেয়ালেও সেটআপ করা যায়। এই ফুল এইচডি 1920 x 1080 রেজুলেশনের মনিটরটি অবিশ্বাস্য স্পষ্টতা এবং পিক্সেল-বাই-পিক্সেল পারফরম্যান্স প্রদান করে।

তাছাড়া, ফ্লিকার-মুক্ত প্রযুক্তি এবং একটি ব্লু লাইট ফিল্টার (Blue light filter) ফিচার থাকার কারণে দীর্ঘ সময় মনিটরে তাকিয়ে থাকলেও চোখের চাপ অনুভব হয় না।

এটি একটি বর্ডারলেস মনিটর চমৎকার ডিজাইনে তৈরি করা হয়েছে। এতে একটি ইকো মোড রয়েছে যা কম শক্তি খরচ করে, যার ফলে একটি ছোট কার্বন ফুটপ্রিন্ট এবং অফিসের ওভারহেড খরচ কমে যায়।

মনিটরটিতে HDMI এবং VGA পুট থাকায় আপনি স্বাধীন ভাবে কম্পিউটারের মাদারবোর্ড এবং গ্রাফিক্স কার্ড থেকেও মনিটরটিকে সংযোগ করতে পারবেন।

বাজেট বিল্ডারদের কাছে ViewSonic VA2201-H মডেলের 22″ ইঞ্চি মনিটরটি অনেকটা বাজেট ফ্রেন্ডলি বলা যায় এবং এটি কম দামে ভালো মনিটর গুলোর মধ্যে অন্যতম।

ViewSonic VA2201-H 22-ইঞ্চি ফুল HD VA মনিটরটিতে রয়েছে 3 বছরের ম্যানুফ্যাকচারিং ওয়ারেন্টি৷

৩, Acer EB192Q

Brand name: Acer
Screen Size: 47 cm (18.5″)
Resolution: 1366 x 768 Pixel
Display Type: HD Backlit
LED LCD Display
Refresh Rate: 60Hz
Panel Type: Twisted Nematic
Film (TN Film)
Brightness: 200 Nits
Viewing Angle: 95/65
Color Support: 16.7 Million
Colors
Connectivity: VGA
Manufacturing
Warranty:
03 Years
Price: (দাম) 9,200/- টাকা

Acer EB192Q মনিটরটি 18.5 ইঞ্চি (1366×768) যা HD ব্যাকলিট LED LCD ডিসপ্লে অফার করে। মনিটরটি বর্ডারলেস না হলেও এটি দেখতে বেশ সুন্দর।

Acer EB192Q মডেলের মনিটরটি আরামদায়ক ভিউ প্রদান করে, যাতে চোখের আরাম পাওয়া যায়।

মনিটরটিতে LED প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে এবং এটি অনেক কম শক্তি ব্যবহার করে, যা 68% পর্যন্ত বিদ্যুৎ শক্তি সাশ্রয় করতে পারে।

এই Acer মনিটরে মার্কারি-মুক্ত এলইডি ব্যাকলাইট প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে, যা অনেকটা নিরাপদ এবং পরিবেশগত যত্নের নিশ্চয়তা দেয়।

Acer EB192Q মডেলের মনিটরটি বেসিক লেভেলের ব্যবহারকারীদের জন্য বাজেট ফ্রেন্ডলি এবং কম দামে ভালো মনিটরও বটে।

সর্বশেষ Acer EB192Q মনিটরটিতে রয়েছে 03 বছরের ওয়ারেন্টি।

৪, LG 22MK430H-B

Brand name: LG
Screen Size: 22-inch – Full HD
IPS LED Monitor
with AMD FreeSync
Resolution: 1920 x 1080 Pixel
Display Type: IPS
Refresh Rate: 75Hz
Response Time: 5ms (Faster)
Brightness: 250(Typ),

200(min) cd/m2

Viewing Angle: 178 / 178
Contrast Ratio: 1000:1 (Typ.)
Color Support: 16.7M Colors
Color Space
Support:
8 bit true
Connectivity: HDMI – x 1
Audio Jack: Yes
Video Features: Color Temperature
Selection
Manufacturing
Warranty:
03 years
Price: (দাম) 14,000/- টাকা

LG 22MK430H-B মডেলের মনিটরটি ফুল এইচডি আইপিএস ডিসপ্লে অফার করে। এই মনিটরে আইপিএস (ইন-প্লেন সুইচিং) প্রযুক্তি লিকুইড ক্রিস্টাল ডিসপ্লের পারফরম্যান্স হাইলাইট করা হয়েছে।

মনিটরটিতে AMD FreeSyncâ  ফিচার রয়েছে, যা গেমারদেরকে খুবই চমৎকার এক্সপেরিয়েন্স দেবে। অনেক গেমারদের কাছে কম দামে ভালো মনিটর LG এর 22MK430H-B মডেলটি।

মনিটরটির একটি বিশেষত্ব হলো LG এর ব্ল্যাক স্টেবিলাইজার অন্ধকারের দৃশ্যগুলোকে অনুধাবন করে এবং এটিকে আরও উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে।

তাছাড়া এই মনিটের রয়েছে অন-স্ক্রিন কন্ট্রোল ফিচার। সহজে অ্যাক্সেসের জন্য মনিটর সেটিংস রয়েছে। যেখান থেকে ভলিউম, ডিসপ্লে উজ্জ্বলতা, পিকচার মোড প্রিসেট, স্ক্রিন স্প্লিট 2.0 এবং ডুয়াল কন্ট্রোলার রয়েছে।

মনিটরটিতে স্ট্যান্ড ছাড়াও ওয়াল মাউন্টেবল ফিচার রয়েছে। এতে করে আপনি স্বাধীন ভাবে মনিটরকে যে কোনো স্থানে সেটআপ করতে পারবেন।

সর্বশেষ LG 22MK430H-B মডেলের মনিটরটিতে রয়েছে 03 বছরের ওয়ারেন্টি।

৫, Xiaomi Redmi 1A

Brand name: Xiaomi Redmi
Screen Size: 23.8-Inch
Resolution: Full HD
(1920 x 1080)
Display Type: IPS
Refresh Rate: 60HZ
Response Time: 6ms (GTG)
Brightness: 250cd/m
Viewing Angle: Vertical Viewing
Angle: 178°
Contrast Ratio: 1000:1
Color Support: 16.7M Colors
Color Space
Support:
8 bit true
Connectivity: HDMI
(HDMI Interface)
এবং VGA
Aspect Ratio: 16:9
Video Features: Low Blue Light
Manufacturing
Warranty:
2 years warranty
(1-year parts and
2-year service
warranty)
Price: (দাম) 14,000/- টাকা

Xiaomi এর Redmi 1A মডেলের মনিটরটি 23.8 ইঞ্চি বর্ডারলেস মনিটর। মনিটরটি অনেক পাতলা এবং বর্ডারলেস হওয়ায় দেখতে বেশ সুন্দর।

মনিটরটিতে HDMI এবং VGA পুট রয়েছে। এই মনিটরটিকে আপনি কম্পিউটারের মাদারবোর্ড এবং গ্রাফিক্স কার্ডেও সংযোগ করতে পারবেন।

Redmi বলছে যে তাদের এই মনিটরে 178° ভিউ অ্যাঙ্গেল রয়েছে এবং এটিতে কম নীল আলো (blue light) নির্গমনের জন্য TÃœV Rheinland- দ্বারা প্রত্যয়িত।

16.7 মিলিয়ন কালার, 60HZ রিফ্রেশ রেট এবং 1920 x 1080 রেজুলেশনের ফিচারের মনিটরটি ব্যবসায় এবং বাড়িতে ব্যবহারের উপযোগী।

তবে মনিটরটি খুব পাতলা এবং বর্ডারলেস হওয়ার কারণে দেখতে সুন্দর হলেও এর বিল্ড কোয়ালিটি খুব বেশী ভালো মনে হয়নি। তবে কম্পিউটারের বাজেট বিল্ডারদের কাছে ইতোমধ্যেই এই মনিটরটি জায়গা করে নিয়েছে।

সর্বশেষ এই মনিটরের 2 বছরের ওয়ারেন্টি রয়েছে (এক বছরের যন্ত্রাংশ (parts) ওয়ারেন্টি এবং 2-বছরের সার্ভিস ওয়ারেন্টি)।

গুরুত্বপূর্ণ কিছু কথাঃ

প্রিয় পাঠক, কম্পিউটার মার্কেটে মনিটরের দাম বর্তমানে অনেক বেশী। যেই মনিটরগুলো রিভিউ করেছি, এগুলোর প্রত্যেকটা মনিটরের দাম এক সময় ২০০০/ ৪০০০ টাকা কম ছিল। কিন্তু ইলেক্ট্রনিক যন্ত্রের দাম বৃদ্ধি হওয়ায় মনিটরের দামও লাগামহীন হয়ে গেছে।

তবুও চেষ্টা করেছি কম দামে ভালো মনিটর আপনাদের সামনে তুলে ধরার জন্যে। যদিও দাম বেশী। কিন্তু বর্তমান বাজারে এই দামে ভালো মনিটর নেওয়াটা অনেকটা কমপ্লিকেটেড বলা যায়।

আমি যেগুলো রিভিউ করেছি, এই মনিটর গুলো ইতোমধ্যে অনেক সেল হয়েছে। বিশেষ করে বাজেট বিল্ডাররা এই ধরণের মনিটর গুলো সবেচেয়ে বেশী ব্যবহার করছে।

আপনিও যদি একজন বাজেট বিল্ডার হয়ে থাকেন, তবে এই মনিটরগুলোর যে কোনোটা আপনি ব্যবহার করতে পারেন। ফিচার এবং বাজেট মনিটর হিসেবে উপরোল্লিখিত প্রত্যেকটা মনিটরকে ভালোই বলা যায়। তবুও যাচাই করার বিকল্প নেই।

আশাকরি, কম দামে এই মনিটর গুলো আপনার কাজে আসবে ইনশাআল্লাহ। এই বিষয়ে যদি আপনার কোনো প্রশ্ন বা মতামত থাকে তবে কমেন্ট করতে ভুলবেন না। ধন্যবাদ

NAZIRUL ISLAM NAKIB

যত জ্ঞান-ধন করেছি অর্জন জীবনের প্রয়োজনে,
তার সবটুকুই বিলাতে চাই সৃষ্টির কল্যাণে।

Add comment

সাবস্ক্রাইব করুন 👇

Your Header Sidebar area is currently empty. Hurry up and add some widgets.

error: কপি করা যাবে না বস!!