গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায়

বাংলা ব্লগে গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায়

গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায় | প্রযুক্তিনির্ভর এই যুগে গুগল এডসেন্সের সাথে প্রায় সকলেই পরিচিত। এডসেন্স হলো গুগলের জনপ্রিয় একটি পরিসেবা। যার ব্যবহারে বিভিন্ন কোম্পানি, প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন কোটি কোটি ক্রেতা-বিক্রেতা, ভক্তবৃন্দের কাছে খুব সহজেই পৌঁছানো হয়। এতে সময় ও বাজেটের অপব্যয় কমে আসে।

অনেকেই প্রশ্ন করেন, কিভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলব বা এডসেন্স একাউন্ট খোলার নিয়ম কি? আসলে এডসেন্স খোলার সংক্ষিপ্ত কোন নিয়ম নেই। এটা গুগল কর্তৃক অনুমোদনের বিষয়। বিশেষ কয়েকটি ধাপ অনুসরণ করে এডসেন্স খুলতে হয়। আজ আমরা জানবো গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায় সম্পর্কে। চলুন জেনে নিই আদ্যোপান্ত।

এডসেন্স একাউন্ট

এডসেন্সের দুইটি ভার্সন রয়েছে। হোস্টেড এডসেন্স এবং নন হোস্টেড এডসেন্স। এডসেন্স একাউন্ট সরাসরি ভাবে এপ্রুভ করা হয় না। ইন্টারনেট ভিত্তিক বিভিন্ন পরিসেবা বা গুগলের নিজস্ব পরিসেরার মাধ্যমে এডসেন্স এপ্রুভ করানো যায়। যেমন, ইউটিউব চ্যানেল, সফটওয়্যার, মোবাইল অ্যাপস এবং ওয়েবসাইট ইত্যাদি দিয়ে।

ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে হোস্টেড এডসেন্স পাওয়া যায়। আর ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নন হোস্টেড এডসেন্স পাওয়া যায়। হোস্টেড এবং নন হোস্টেড এডসেন্সের মাঝে তেমন বড় কোন পার্থক্য নেই। তবে নন হোস্টেড এডসেন্স দিয়ে ওয়েবসাইটের যে কোন জায়গায় গুগল অ্যাড বসানো যায়। আর হোস্টেড অ্যাডসেন্স দিয়ে শুধু ইউটিউব ভিডিওতেই অ্যাড বসানো যাবে। তবে ইউটিউব চ্যানেল দিয়ে পাওয়া হোস্টেড এডসেন্সটি পরবর্তী সময়ে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নন হোস্টেড এডসেন্সে কনভার্ট করা যাবে।

গুগল এডসেন্স কি বাংলা ব্লগ সাপোর্ট করে?

একটি সময় ছিল যখন বাংলা সাইটে গুগল এডসেন্স সাপোর্ট করতো না। তখন বাংলা সাইট নিয়ে কেহই কাজ করতে তেমন আগ্রহও প্রকাশ করতো না। সত্যি বলতে এজন্যই আমাদের বাংলা ব্লগ ইন্ডাস্ট্রিরা একটু পিছিয়ে পড়েছে।

তবে কয়েকবছর আগে গুগল থেকে অফিসিয়ালি বাংলা ব্লগে এডসেন্স দেওয়া শুরু করেছে। এখন অনায়াসেই বাংলা সাইটে গুগল এডসেন্স পাওয়া যায়।

অনেকেই মনে করেন, বাংলা ওয়েবসাইটে এডসেন্স নেওয়ার কোন ভ্যালু নেই। কারণ, বাংলা কন্টেন্টের ভিজিটর কম। এটা আসলে সত্য নয়।

আমরা ২-৩ বছর আগেই মাত্র বাংলা ওয়েবসাইটে এডসেন্স এপ্রুভের সুযোগ পেয়েছি। আগে বাংলা ওয়েবসাইট নিয়ে কেউ কাজ করতো না। তবে এখন হাজার হাজার ওয়েবসাইট তৈরি হয়েছে বাংলা ব্লগ ইন্ডাস্ট্রিতে। তাছাড়া আস্তে আস্তে বাংলা কন্টেন্টের ভিজিটরও বাড়ছে। যাইহোক, এখন মূল বিষয়ে আসি।

গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায়

গুগল এডসেন্স বাংলা সাইটেও এপ্রুভ করে। তবে আপনাকে কিছু নিয়ম ফলো করতে হবে। যা নিচে তুলে ধরা হলো।

() প্রথমত ওয়েবসাইটের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো থিম বা ডিজাইন। ভালো মানের একটি থিম চয়েজ করাও গুগল অ্যাডসেন্স পেতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। চেষ্টা করবেন প্রিমিয়াম থিম ব্যবহার করার জন্য। কেননা, প্রিমিয়মি থিম গুলো গুগল এডসেন্স এড অপটিমাইজ থাকে।

(২) ব্লগে এডসেন্স পাওয়ার প্রথম শর্ত ইউনিক কন্টেন্ট। আপনার ওয়েবসাইটের কন্টেন্ট গুলোতে যেই লেখা ও ছবি ব্যবহার করবেন তা অবশ্যই ইউনিক হতে হবে। তা নাহলে আপনার ব্লগে এডসেন্স পাবেন না।

(৩) যে কোন ওয়েবসাইটে চারটি পেইজ তৈরি করা অত্যন্ত জরুরি। About Us, Terms of Use, Privacy Policy, Contact Us ইত্যাদি। ব্লগ ওয়েবসাইটে এডসেন্স আবেদন করার আগেই এই চারটি পেইজ অবশ্যই পাবলিশ অবস্থায় রাখতে হবে এবং প্রতিটি পেজেই আপনার ব্লগ সাইটের নীতিমালা সম্পর্কে কিছু লিখতে হবে। নাহয় এডসেন্স এপ্রুভ করবে না।

(৪) এডসেন্স আবেদন করার আগে ব্লগে অবশ্যই ২০ থেকে ৩০ টি ইউনিক আর্টিকেল পাবলিশ করা প্রয়োজন। আমি পার্সোনালি বলব, কমপক্ষে ৫০ টি লেখা পাবলিশ করে এডসেন্স আবেদন করা ভালো। তাহলে প্রথম চান্সেই এবং অল্প সময়েই গুগল এডসেন্স এপ্রুভ করে দেবে।

(৫) ব্লগে কপিরাইটের আওতাধীন কোন কন্টেন্ট পাবলিশ করা যাবে না। লেখা ও ছবি অবশ্যই ইউনিক হতেই হবে। কপিরাইট আইন লঙ্ঘন করলে কখনই গুগল এডসেন্সে এপ্রুভ করবে না। যদিও ভুলক্রমে এপ্রুভ করেও ফেলে, তবে কিছুদিন পর তা ডিজেবল করে দেবে। তাই এই বিষয়ে সচেতন থাকবে হবে।

পার্সোনাল এডসেন্স টিপস

বাংলা ব্লগে এডসেন্স আবেদন করার আগে কিছু পরামর্শ থাকবে। যা আপনাকে বাংলা সাইটে গুগল এডসেন্স পেতে এডভান্টেজ তৈরি করবে।

() আপনার ব্লগিং ওয়েবসাইট এর সাইট ম্যাপ তৈরি করে নিন এবং এটা গুগল সার্চ কনসোলে সাবমিট করুন।

(২) ওয়েবসাইটের স্পিড অপটিমাইজ করুন।

(৩) বড় আর্টিকেল লিখতে চেষ্টা করুন। প্রত্যেকটা আর্টিকেলে ফিচার ইমেজ ব্যবহার করুন এবং আর্টিকেলের মাঝখানে রিলেটেড ছবি যুক্ত করে দিন।

(৪) অনপেজ এসইও ভালো করুন। অর্থাৎ, কিওয়ার্ডের ভিত্তিকে আর্টিকেল লিখুন এবং ওয়েবসাইটের ভেতর ইন্টারনাল লিংক খুব ভালো করে ম্যানেজ করুন।

(৫) অশ্লীল, গালমন্দ বিষয়ক কন্টেন্ট থেকে দূরে থাকুন। এমন কন্টেন্ট আপনার সাইটে কখনই পাবলিশ করতে যাবেন না।

(৬) ব্লগে এডসেন্স আবেদন করার আগে অন্তত ৩ মাস সময় দিন। ইনকামের তাড়া না থাকলে আরো বেশী সময় নিন। এটা আপনার এডসেন্স পাওয়ার আগে ও পরের জন্য ভালো হবে।

আপনি যদি উপরোল্লিখ সবগুলো বিষয় ভালো ভাবে মেনে তারপর বাংলা ব্লগে এডসেন্স আবেদন করেন, তবে ইনশাআল্লাহ আপনার বাংলা ওয়েবসাইটে এডসেন্স পেয়ে যাবেন।

NAZIRUL ISLAM NAKIB

যত জ্ঞান-ধন করেছি অর্জন জীবনের প্রয়োজনে,
তার সবটুকুই বিলাতে চাই সৃষ্টির কল্যাণে।

Add comment