রমজান কুরআন নাজিলের মাস

রমজান কুরআন নাজিলের মাস

রমজান কুরআন নাজিলের মাস। আরবি বারো মাসের মধ্যে রমজান মাসের স্থান হলো নবম। এই মাসের বিশেষ একটি বৈশিষ্ট্য হল তা কুরআন নাজিলের মাস। রমজান মাসেই পরাক্রমশালী দয়াময় আল্লাহ পূর্ণ কুরআন শরীফ একত্রে লওহে মাহফুজ থেকে দুনিয়ার আসমানে প্রথম অবতীর্ণ করেন। তারপর ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে আমাদের প্রিয়নবী হযরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর উপর সুদীর্ঘ ২৩ বছরে অহীর মাধ্যমে পবিত্র কুরআন দুনিয়াতে প্রবেশ করে। তবে রাসূল সা. -এর নিকট রমজান মাসেই সর্বপ্রথম কুরআনের অহী নাজিল হয়।

রমজান মাসের পরিচয় ও গুরুত্ব বর্ণনা করতে গিয়ে মহান আল্লাহ পবিত্র কুরআনের সূরা বাকারার ১৮৫ নং আয়াতে উল্লেখ করেন : রমজান মাস এমন একটি মাস যাতে কুনআন নাজিল করা হয়েছে। যা মানুষের জন্য হেদায়াত এবং সুপথ প্রাপ্তির সুস্পষ্ট পথনির্দেশ আর সত্য-মিথ্যার মধ্যে পার্থক্যকারী। সুতরাং তোমাদের যে কেউ এ মাস পাবে সে যেন অবশ্যই রোজা রাখে।

মোটকথাঃ

রমজান মাস অতি বরকতময় একটি মাস। পবিত্র কুরআনকে কেন্দ্র করেই এই মাসটির মর্যাদা এভাবে বৃদ্ধি করা হয়েছে। কুরআনের সাথে যারাই সম্পৃক্ত হবে তাদেরকেও মহান আল্লাহ অতি সম্মানিত করবেন। তাই প্রতিটি মুসলমানের জন্য রমজান মাস ঈদের মতো। খুশির সাথে রমজানকে বরণ করে নেওয়া আমাদের ঈমানী দায়িত্বও বটে। যেহেতু রমজান কুরআন নাজিলের মাস। সেহেতু রমজান মাসে বেশি বেশি কুরআন তিলাওয়াতের মাধ্যমে নেকি হাসিলের সুবর্ণ সুযোগ রয়েছে। মহান আল্লাহ আমাদের সবাইকেই হেদায়াতের সাথে কুরআন বুঝার তাওফিক দান করুন। আমিন।

– নাজিরুল ইসলাম নকীব। কিশোরগঞ্জ

Add comment