গুগল এডসেন্স কি? কিভাবে কাজ করে?

গুগল এডসেন্স একাউন্ট কি? কিভাবে কাজ করে?

ইন্টারনেট থেকে আয় করার কথা ভাবলেই গুগল এডসেন্স একাউন্ট -এর বিষয়টা সবার সমানে চলে আসে। কারণ, প্রযুক্তির এই যুগে আমরা প্রায় অনেকেই জানি, গুগল এডসেন্স থেকে বিভিন্ন উপায়ে আয় করা যায়। তবে আমাদের মতো অনেকেই আছেন, গুগল এডসেন্স কি তা জানে না। 

তবে একটা বিষয় সত্য যে, Google AdSense এর নাম শুনেনি এমন লোক খুঁজে পাওয়া যাবে না। আমাদের আশে পাশের এমন অনেক বড় ভাই, বন্ধু-বান্ধব আছেন যারা গুগল এডসেন্স এর মাধ্যমে ইন্টারনেট থেকে আয় করছেন। 

আপনিও হয়ত এজন্যই Google AdSense সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন। আপনার জন্যই এই আর্টিকেলটি তৈরি করা হয়েছে। চলুন জেনে নিই গুগল এডসেন্স কী এবং এটি কিভাবে কাজ করে।

গুগল এডসেন্স কি?

গুগল এডসেন্স হলো একটি স্পন্সর বা এডভার্টাইজিং সিস্টেম। এটা গুগলের একটি নিজস্ব পরিসেবা। এই সেবাটির মাধ্যমে গুগল তাদের গ্রাহকদের থেকে প্রতি মাসে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার আয় করে। শুধু তাই নয়, গুগলের এই সেবাটি গ্রহণ করে সাধারণ মানুষও মিলিয়ন মিলিয়ন ডলারের বাণিজ্য অনলাইনেই পরিচালনা করে তারাও বিশাল অংকের টাকা আয় করছে।

আপনারা সকলেই জানেন, গুগল পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সার্চ ইঞ্জিন। সেই সাথে প্রযুক্তির শুরু থেকেই ইন্টারনেট জগতে তাদের আদিপত্যই বিস্তার করছে। ইন্টারনেটের বড় বড় সেবা গুলো তারাই নিয়ন্ত্রণ করছে। আমরা সবাই কোনোনা কোনো ভাবে গুগলের গ্রাহক। গুগল এই বিষয়টি কেন্দ্র করে গুগল এডসেন্স সেবাটি চালু করেছে এবং এই সেবাতে তারা শতভাগ সফলও বটে।

গুগল এডসেন্স কিভাবে কাজ করে?

ইন্টারনেট ভিত্তিক সকল বিজ্ঞাপন সিস্টেম প্রায় ২ টি ধাপ ফলো করে কাজ করে। গুগল এডসেন্সও সেই দুইটি ধাপেই তাদের কাজ করতে দেখা যায়।

(১) প্রথমে তারা বিভিন্ন কোম্পানি থেকে বিজ্ঞাপন বা স্পন্সর অর্থ চুক্তির মাধ্যমে সংগ্রহ করে। 

(২) তারপর বিভিন্ন কোম্পানি থেকে প্রাপ্ত বিজ্ঞাপন বা স্পন্সরগুলোকে গুগলের আওতায় থাকা বিভিন্ন থার্ডপার্টি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রদর্শন করায়।

যাদের ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন শো করানো হয়, তাদেরকে গুগলের ভাষায় পাবলিশার বলা হয়। আর এই পাবলিশার এবং বিজ্ঞাপন দাতাকে ব্যবহার করেই গুগলে বিশাল বাণিজ্য গড়ে উঠেছে।

গুগলকে বিজ্ঞাপন দাতারা কত টাকা দেয়?

প্রতিটা কোম্পানিই তাদের বিজ্ঞাপন বা স্পন্সর এর জন্য গুগল এসসেন্সকে নির্দিষ্ট একটি এমাউন্ট পে করে। এখানে কোনো প্রকার নির্দিষ্ট বাজেট বলে দেওয়া হয়নি। তবে প্রতিটি বিজ্ঞাপনের জন্যই একটি সিপিসি (CPC) সিস্টেম রয়েছে। যেটার মাধ্যমে বিজ্ঞাপনের বাজেট কম-বেশী ধরা হয়।

এভাবে প্রতিটি কোম্পানিই তাদের কোম্পানির প্রচার-প্রচারণায় গুগল এডেসেন্সকে ব্যবহার করে এবং চুক্তিবদ্ধতার শর্ত সাপেক্ষে গুগল এডসেন্স বিভিন্ন ভাবে তাদের এড অনলাইনে প্রদর্শন করে।

বিজ্ঞাপনের জন্য গুগলের চুক্তি হয় যেভাবে

গুগলের যেহেতু বিলিয়ন বিলিয়ন গ্রাহক, সেহেতু গুগল চাইলেই যে কোনো বিজ্ঞাপন বা নিউজ তাদের গ্রাহকদের সামনে তুলে ধরতে পারে। এটা গুগলের জন্য খুবই সহজ।

বিজ্ঞাপন দাতাদের সাথে গুগল মূলত এভাবে চুক্তি করেঃ
ধরুণ আপনার একটি টি-শার্ট-এর কোম্পানি আছে। এখন চাচ্ছেন যে, এই টি-শার্টগুলো বাজারজাত করার পাশাপাশি অনলাইনে বিভিন্ন ক্রেতার কাছে পৌঁছে দিতে।

গুগলের একটি বুস্টিং সিস্টেম রয়েছে। যেটা বিভিন্ন ভাবে কাজ করে। এবং এটাতে একটি জেনারেল সিস্টেম তৈরি করা আছে, সেটা আপনার বাজেটের ভিত্তিতে বিজ্ঞাপন শো করাবে।

আপনি যদি বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে আপনার টি-শার্টগুলো গুগলের গ্রাহকের কাছে পৌঁছাতে চান, তবে আপনাকে গুগলের সিস্টেম গুলো ফলো করতে হবে।

এক্সামপল: গুগল সিস্টেম হলো তারা ৫ ডলারে আপনার টি-শার্টের বিজ্ঞাপনটি তাদের ৮ হাজার গ্রাহকের সামনে তুলে ধরবে। একইভাবে ২০ ডলারে তারা আপনার টি-শার্টের বিজ্ঞাপনটি তাদের ৩২ হাজার গ্রাহকের সামনে তুলে ধরবে।

এই ধরণের চুক্তির জন্য তারা আলাদা একটি সিস্টেম তৈরি করে রেখেছে। আপনি তাদের ডলার পে করলেই তারা আপনার কোম্পানির বিজ্ঞাপন তাদের গ্রাহকদের সামনে বিভিন্ন উপায়ে তুলে ধরবে। এভাবে আপনি গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে খুব সহজেই অনলাইনে সঠিক ক্রেতার কাছে আপনার বিজ্ঞাপন পৌঁছাতে পারবেন।

এতে করে আপনার কোম্পানির টি-শার্টগুলো সহজেই বিক্রি হয়ে যাবে। তার পাশাপাশি আপনার কোম্পানির প্রচার প্রসার ঘটবে।

গুগল এডসেন্স কি? কিভাবে কাজ করে?

এডসেন্স থেকে পাবলিশাররা আয় করে যেভাবে

গুগল সাধারণত তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে স্পন্সর বিজ্ঞাপনগুলো প্রদর্শন করে না। তারা বিভিন্ন কোম্পানি থেকে প্রাপ্ত বিজ্ঞাপন গুলো তাদের আওতায় থাকা থার্ডপার্টি ওয়েবসাইট গুলোতে প্রদর্শন করিয়ে ওয়েবসাইটের মালিকদের মাঝে স্পন্সরের ৬০% অর্থ বিলিয়ে দেয়। আর বাকি ৪০% অর্থ গুগল এডেসেন্স কর্তৃপক্ষ প্রথমেই কেটে নেয়। 

স্পন্সরের ৬০% অর্থ যারা পায় তারা পাবলিশার। আর এই পাবলিশারদের থেকে গুগল আরো বিভিন্ন উপায়ে ৬০% অর্থ হতেও আরো কিছু অর্থ তারা কেটে নেয়। 

তবে ইদানিং একটি বিষয় চোখে পড়েছে। আপনারা জানেন, ইউটিউব গুগলেরই একটি সার্ভিস। যাদের ইউটিউব চ্যানেলে গুগল এডসেন্স নাই, তাদের চ্যানেলে গুগল এখন থেকে বিজ্ঞাপন শো করাচ্ছে এর সেই বিজ্ঞাপন থেকে প্রাপ্ত সম্পূর্ণ অর্থই গুগল নিজেরাই নিয়ে নিচ্ছে।

পাবলিশার বলতে কি বুঝায়?

আপনার যদি একটা ওয়েবসাইট বা ইউটিউব চ্যানেল থাকে, এবং আপনি যদি গুগলের এডসেন্স বিজ্ঞাপন আপনার ওয়েবসাইট বা ইউটিউব চ্যানেলে এডসেন্স দ্বারা শো করিয়ে ইনকাম করেন, তবে গুগলের ভাষায় আপনিই পাবলিশার।

শেষ কথাঃ

প্রিয় পাঠক, বিশ্বব্যাপী যত অনলাইন ভিত্তিক ডিজিটাল বিজ্ঞাপন সরবারহ সংস্থা রয়েছে, তাদের মাঝে গুগল এডসেন্স অন্যতম এবং বৃহত্তম। আপনি গুগল এডসেন্স ব্যবহার আপনার নিজস্ব কোম্পানি বা ব্যবসার প্রচার-প্রসার ঘটাতে পারবেন। পাশাপাশি আপনি চাইলে একজন পাবলিশার হিসেবে কাজ করে গুগল এডসেন্স থেকে উপার্জনও করতে পারবেন।

আশাকরি গুগল এডসেন্স একাউন্ট কি এবং এটি কিভাবে কাজ করে তা আপনি বুঝতে পেরেছেন। এই বিষয়ে যদি আপনার কোনো প্রশ্ন থাকে তবে অবশ্যই কমেন্ট করতে ভুলবেন না। ধন্যবাদ

NAZIRUL ISLAM NAKIB

যত জ্ঞান-ধন করেছি অর্জন জীবনের প্রয়োজনে,
তার সবটুকুই বিলাতে চাই সৃষ্টির কল্যাণে।

Add comment