SEO Glossary - এসইও টার্ম এবং ডেফিনেশন

SEO Glossary – এসইও টার্ম এবং ডেফিনেশন

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনের নতুন একটি পর্বে আপনাকে স্বাগমত। আজকের বিষয় হলো SEO Glossary অর্থাৎ SEO Term. আপনি যদি এসইও নিয়ে কাজ করতে চান, তবে আপনাকে অবশ্যই এসইও টার্মগুলো জানতে হবে। এসইওর প্রায় ২০০ টি টার্ম রয়েছে। তারমধ্যে কিছু গুরুত্বপূর্ণ টার্ম সম্পর্কে আপনার ভাষায় আলোচনা করা হলো।

এলগরিদম

প্রত্যেকটা সার্চ ইঞ্জিনই নিজস্ব এলগরিদমের ভিত্তিতে কাজ করে। গুগল তার মধ্যে অন্যতম। গুগল এলগরিদম খুবই জটিল পক্রিয়ায় পুরো ইন্টারনেটে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা সকল ওয়েব সাইট থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো অনুসন্ধান করে বের করে এবং তা তাদের নিজস্ব ডেটাবেজে ইনডেক্স বা সংরক্ষণ করে।

পরবর্তীতে ইনডেক্স করা তথ্যগুলোকে গুগল এলগরিদম বিভিন্ন পদ্ধতিতে কমপেয়ার করে দেখে যে, সেই তথ্যগুলোর মধ্যে সবচেয়ে ভালো তথ্য কোনটি, সেটাকেই সার্চ রেজাল্টে উপরে নিয়ে আসে।

অনপেজ এসইও

এসইও টার্ম এর অত্যন্ত গুরুত্ব একটি টার্ম হলো অনপেজ এসইও। যেই ওয়েবসাইটের অনপেজ এসইও খুব ভালো হয়, সেই ওয়েবসাইট গুলো সহজেই গুগলে রেংক করে এবং দীর্ঘদিন টিকে থাকে। অনপেজ এসইওটা বিভিন্ন বিষয়ের সমন্বয়ে করতে হয়, তারমধ্যে রয়েছেঃ হেডিং, শর্ট প্যরাগ্রাফ, মেটা ডেস্ক্রিপশন, ইমেজ, ইন্টারনাল লিংক, এক্সারনাল লিংক ইত্যাদি।

ব্যাকলিংক

এসইও টার্মগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো ব্যাকলিংক। আপনার ওয়েবপেজকে দ্রুত ইনডেক্স করাতে এবং সহজেই সার্চ রেজাল্টে কাঙ্খিত ওয়েবপেজের অবস্থান তৈরি করতে ব্যাকলিংক খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

ব্যাকলিংক সাধারণত দুই প্রকারের হয়ঃ

(১) ইন্টারনাল লিংক। এটি মূলত অভ্যন্তরীণ লিংকিং পদ্ধতি। যখন একটি ওয়েবপেজের সাথে উক্ত ওয়েবসাইটেরই অন্য কোন পেজকে লিংক দেওয়া হয়, তখন সেটাকে ইন্টারনাল লিংক বা ইনবাউন্ড লিংক বলা হয়।

(২) এক্সটারনাল লিংক। একটি ওয়েবসাইট থেকে যখন অন্য কোন ওয়েবসাইটকে লিংক প্রদান কর হয়, এসইও টার্ম এর ভাষায় এই ধরণের লিংককে এক্সারনাল লিংক বা আউটবাউন্ড লিংক বলা হয়।

হেডিং ট্যাগ

প্রত্যেকটা ওয়েবসাইটের যে কোন পেজ বা পোস্টের মাধ্যমে এইচটিএসএল হেডিং ট্যাগ ব্যবহার এসইও টার্ম এর গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। হেডিং ট্যাগ মূলত এলগরিদমকে একটি কন্টেন্টের গুরুত্ব বুঝাতে সাহায্য করে। তাছাড়া, হেডিং ট্যাগের মাধ্যমে পাঠকেরাও কন্টেন্টের মূল ম্যাসেজটা সহজেই বুঝতে পারে।

মেটা ডেস্ক্রিপশন

মেটা ডেস্ক্রিপশন কোন পাঠকের প্রয়োজনে আসে না।  সার্চ ইঞ্জিন বটকে কন্টেন্টের মূল মেসেজ এবং গুরুত্ব বুঝাতে মেটা ডেস্ক্রিপশন ব্যবহার করা হয়। এসইও টার্মগুলোর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি টার্ম হলো মেটা ডেস্ক্রিপশন।

বাউন্স রেট

বাউন্স রেটের মাধ্যমে একটি ওয়েব পেজের স্পিড এবং কন্টেন্ট কোয়ালিটি অনেকটা নির্ধারণ করা হয়। অর্থাৎ, ভিজিটরেরা ওয়েবপেজের কাঙ্খিত আর্টিকেলটি কত মিনিট পড়লো, পুরো আর্টিকেলটি পড়লো কি না, আর্টিকেলটি পড়ে ওয়েবসাইটের অন্য পেজে গেল কি না, নাকি আর্টিকেলেটি ওপেন করেই বের হয়ে গেলো, এসব বিষয়ের উপর ভিত্তি করে বাউন্স রেট নির্ণয় করা হয়।

আপনি যদি গুগল এনালাইটিক্সে যান এবং Google Analytics > Audience > Overview এ যান তবে আপনার সাইটের বাউন্স রেট কত দেখতে পারবেন।

কিওয়ার্ড স্টাফিং

কিওয়ার্ড স্টাফিং হলো ব্ল্যাক হ্যাট এসইওর একটি অংশ। ভিজিটরের যে সব কিওয়ার্ড লিখে গুগলে সার্চ করে তার সব কিওয়ার্ড একত্রে একটি পেজে বার বার দেওয়া, অর্থাৎ কিওয়ার্ড ওভারলোডিং।

একটি সময় ছিল, যখন আর্টিকেল রেংক করানোর জন্য অনেক বেশী কিওয়ার্ড ব্যবহার করতে হতো। কিন্তু গুগল এলগরিদম এর নতুন আপডেটে কিওয়ার্ড স্টাফিংকে ভ্যালুহীন করে দিয়েছে। এখন কিওয়ার্ড স্টাফিং করলে সার্চ রেজাল্ট থেকে পেনাল্টি খেতে হবে।

মোবাইল ফ্রেন্ডলি

ওয়েবপেজ মোবাইল ফ্রেন্ডলি অর্থাৎ রেসপন্সিভ হওয়া জরুরি। ইন্টারনেট ইউজারেদের বেশীভাগ ইউজার এখন মোবাইল দিয়ে ব্রাউজ করে। এজন্যই এসইও টার্ম এর গুরুত্বপূর্ণ একটি টার্ম হিসেবে মোবাইল ফ্রেন্ডলি ডিজাইনকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে।

গুগল র‌্যাঙ্কিং ফ্যাক্টরেও মোবাইল ফ্রেন্ডলি ডিজাইনকে অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে দেখা হয়। তাই ওয়েবসাইটের ডিজাইন অবশ্যই রেসপন্সিভ হওয়া জরুরি। আপনার ওয়েবপেজ মোবাইল ফ্রেন্ডলি কিনা তা চেক করুনঃ Mobile friendly Cheeker .

পেজ স্পিড

একটি ওয়েবসাইটের বাউন্স রেট বিভিন্ন কারণে বেড়ে যেতে পারে। তারমধ্যে পেজ স্পিড অনেক বড় একটি সমস্যা, যা বাউন্স রেটকে অনেক বাড়িয়ে দেয়। সম্প্রতি গুগল বাউন্স রেটের উপর অনেক জোরালো প্রদক্ষেপ নিয়েছে। এসইও টার্ম এবং গুগল র‌্যাঙ্কিং ফ্যাক্টরেও পেজ স্পিড এর বিষয়টি স্পষ্ট।

  • ওয়েব সাইটের পেজ স্পিড চেক করবেন যেভাবেঃ Website Page Speed Check 

​​​​https (এইচ.টি.টি.পি.এস)

https এর পূর্ণরূপ হলো ’Hyper Text Transfer Protocol Secure’। এটি মূলত ওয়েবসাইট এবং ভিজিটরদের মাঝে সিকিউরিটি কানেকশন তৈরি করে।

XML Sitemap

XML Sitemap এসইও টার্মগুলোর অন্যতম। এক্সএমএল সাইটম্যাপ মূলত রোড ম্যাপের মতো কাজ করে। গুগল বট বা অন্যান্য সার্চ ইঞ্জিনের বটগুলোকে এক্সএমএল সাইটম্যাপ রাস্তা দেখিয়ে দেয়। অর্থাৎ, আপনার সাইটে কিভাবে প্রবেশ করতে হবে, কোন পেজে কি আছে, কোন পোস্টে কি আছে, এভাবে ওয়েবসাইটের সমস্ত ডেটাসমূহ সার্চ ইঞ্জিনের বট এর সামনে XML Sitemap তুলে ধরে।

এক্ষেত্রে গুগল বট সহজেই ডেটাগুলো নির্ণয় করতে পারে এবং অল্প সময়েই ইনডেক্স করে নেয়। এজন্য এই বিষয়টাকেও এসইওর গুরুত্বপূর্ণ টার্ম হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

এসইও টার্ম ও শেষ কথাঃ

আপনি যদি এসইও শিখতে আগ্রহী হন বা ইতোমধ্যেই এসইওর কাজ করে থাকেন, তবে SEO Glossary – এসইও টার্ম এবং ডেফিনেশন বিষয়ে আরো জানতে হবে। যেগুলো না জানলেই নয়, আমরা শুধুমাত্র SEO Term এর সেই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোই কেবল তুলে ধরতে চেষ্টা করেছি। আপনি যদি এই বিষয়গুলো ভালো ভাবে ফলো করতে পারেন, তবুও এসইও ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করতে পারবেন।

আমরা প্রতিনিয়তই এসইও উপর বিভিন্ন টিপস দিয়ে আসছি। আপনি যদি পূর্ণাঙ্গ এসইও শিখতে চান তবে আমাদের এসইও ক্যাটাগরিটি ফলো করতে পারেনঃ SEO Bangla Tutorial

এসইও বিষয়ে আপনার কোন প্রশ্ন  বা মন্তব্য থাকলে কমেন্টে জানিয়ে দিন। সবাইকে ধন্যবাদ।

NAZIRUL ISLAM NAKIB

যত জ্ঞান-ধন করেছি অর্জন জীবনের প্রয়োজনে,
তার সবটুকুই বিলাতে চাই সৃষ্টির কল্যাণে।

Add comment