গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কত দিন লাগে - গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কতদিন লাগবে

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কতদিন লাগবে?

চাহিদাগত ভাবে বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় এবং দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহৃত জিনিসের নাম গ্রাফিক্স। বর্তমান সময়ের সবচেয়ে প্রয়োজনীয় এবং পেশাগত ভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইনারের মান অনেক উন্নত। বেশ কয়েক বছর ধরে গ্রাফিক্স ডিজাইনের উপর কাজ করতে গিয়ে একটা প্রশ্ন অনেকের কাছ থেকেই এসেছে। তা হলো গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কত দিন লাগে?

বিশ্বব্যাপী মানুষের কাছে গ্রাফিক্স ডিজাইন এমন একটি প্রয়োজনীয় বিষয়, যা আমাদের প্রত্যেকেরই কাজে লাগে। বই-পুস্তক থেকে শুরু করে শিক্ষা, সাহিত্য, সংস্কৃতি, সরকারি, বেসরকারি সকল কার্যক্রমেই গ্রাফিক্স ডিজাইন ব্যবহার করা হয়।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি?

গ্রাফিক্স ডিজাইন সাধারণত নকশা, চিত্র অঙ্কন বা ইমেজ জাতীয় কাজকে বুঝানো হয়। অর্থাৎ, আপনি যখন কোন ইমেজ বা ছবি নিয়ে কাজ করবেন, তখন সেটা গ্রাফিক্স ডিজাইনের অন্তর্ভূক্ত হবে।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি তার উপর ইতোমধ্যেই আর্টিকেল প্রকাশ করা হয়েছে। অবশ্যই পড়ুনঃ গ্রাফিক্স ডিজাইন কি?

”গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কত দিন লাগে বা লাগবে” তা জানার আগে আপনাকে প্রথমেই গ্রাফিক্স ডিজাইন এর প্রকারভেদ সম্পর্কে জানার প্রয়োজনবোধ করছি।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কত প্রকার?

কাজের ধরণ অনুযায়ী গ্রাফিক্স ডিজাইন সাধারণত ২ প্রকার।

  1. স্টিল ইমেজ গ্রাফিক্স
  2. মোশান গ্রাফিক্স

(১) স্টিল ইমেজ গ্রাফিক্স বলতে 2D কোন কোন ইমেজ বা ছবিকে বুঝানো হয়। অর্থাৎ, যেই ধরণের ইমেজ নড়চড়া করে না। যেমনঃ পোস্টার ডিজাইন, ব্যানার ডিজাইন, ফেস্টুন ডিজাইন ইত্যাদি।

পড়ার সাজেশনঃ
ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ সমূহ কি কি?
সেরা ০ টাকা ইনকাম করার ওয়েবসাইট

(২) মোশান গ্রাফিক্স বলতে এমন এক ধরণের ডিজাইনকে বুঝানো হয়, যেটা স্বাভাবিক ভাবে নড়াচড়া করে। মোশন গ্রাফিক্স সাধারণত 3D ক্যাটাগরির হয়ে থাকে। অর্থাৎ, যেটা ভিডিও আকারের হয়। যেমনঃ ইনট্রু, অ্যনিমেশন ইত্যাদি।

স্টিল ইমেজ গ্রাফিক্স এবং মোশান গ্রাফিক্স এর ভেতরে আরো বেশকিছু সাব ক্যাটাগরি রয়েছে। গ্রাফিক্স ডিজাইন এর প্রকারভেদ সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে অবশ্যই পড়ুনঃ গ্রাফিক্স ডিজাইন কত প্রকার?

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কত দিন লাগে?

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কতদিন লাগে
গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কতদিন লাগবে

”গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কত দিন লাগে” তার সময়সীমা মানুষের এক্টিভিটি ও লার্নিং এর উপর নির্ভর করবে। তাছাড়া, আপনি কোন টাইপের গ্রাফিক ডিজাইন শিখতে চান? অর্থাৎ, স্টিল ইমেজ গ্রাফিক নাকি মোশন গ্রাফিক?

স্টিল ইমেজ গ্রাফিক্স শেখার ক্ষেত্রে সময় কম লাগবে। আর মোশান গ্রাফিক্স শেখার ক্ষেত্রে সময় একটু বেশী প্রয়োজন হবে।

যে ফাস্ট লার্নার তার জন্য হয়ত যে কোন ধরণের গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে সর্বোচ্চ ৩০ দিন লাগবে। আর যে স্লো লার্নার তার সেই একই কাজটি শিখতে হয়ত ৬০ দিনের বেশী সময় লাগতে পারে।

আমি গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখেছিলাম প্রায় ৩ মাসে। এটা এজন্য যে, আমি যেই প্রশিক্ষকের কাছ থেকে শিখেছি, তার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের নিয়ম অনুয়ায়ী সাপ্তাহে একদিন ক্লাস ছিল। এজন্যই সময় বেশী লেগেছে।

২০২০ সালে ২ জন ছাত্রকে আমি গ্রাফিক্স ডিজাইনের প্রশিক্ষণ দিই। তাদেরকে প্রতিদিন ২ ঘন্টা সময় ধরে কাজ শিখাতাম। স্টিল ইমেজ গ্রাফিক্স ডিজাইন এর প্রায় পুরোপুরি হাতে -কলমে শেখানোতে সময় নিয়েছিলাম দেড় মাস।

বাংলাদেশ এবং ইন্ডিয়াতে অনেক আইটি ফার্ম আছে, যেখানে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখানো হয়। প্রত্যেকটা আইটি ফার্মই গ্রাফিক্স ডিজাইন -এর উপর প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য একটি নির্দিষ্ট সময়সীমা নির্ধারণ করে দেয়।

পড়ার সাজেশনঃ
স্টুডেন্ট অনলাইন ইনকাম করার সেরা ৫ উপায়
ডিজিটাল মার্কেটিং শিখতে কতদিন লাগে?

অনেকেই মাস ব্যাপী / ২ মাস ব্যাপী / ৩ মাস ব্যাপী / ৬ মাস ব্যাপী এবং বছর ব্যাপীও গ্রাফিক্স ডিজাইনের উপর নতুনদেরকে প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে।

আপনার ক্ষেত্রেও হয়ত এমনই সময় লাগতে পারে। যারা প্রশ্ন করেন, গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কত দিন লাগে? তাদেরকে এক কথায় উত্তর দিতে গেলে ২ মাস বলা যেতে পারে।

গ্রাফিক্স মূলত সফটওয়্যার ভিত্তিক কাজ। সফটওয়্যারের বিভিন্ন টুলসের ব্যবহার এবং ফিচার সমূহের সাথে পরিচয় করিয়ে দেওয়াই হলো প্রশিক্ষকের কাজ।

হয়ত অনেক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে সফটওয়্যারের ব্যবহারবিধি শেখানোর পাশাপাশি কয়েকটা প্রজেক্ট করেও দেখানো হয়। কোর্স শেষে পরীক্ষাও নেওয়া হয়।

তবে একটি বিষয় হলো, প্রশিক্ষকের কাছ থেকে আপনি যেই পরিমাণ কাজ শিখবেন, শুধুমাত্র তার উপর ভিত্তি করে আপনি প্রফেশনালি কাজ করতে পারবেন না।

প্রশিক্ষণ নেওয়ার পর আপনাকে দীর্ঘদিন পর্যন্ত সেই কাজের উপর বিভিন্ন ভাবে অনুশীলন করতে হবে। তবেই আপনার ডিজাইনে ইউনিকনেস এবং ক্রিয়েটেবিটি আসবে। গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কত দিন লাগে তখন আপনি নিজেই উপলদ্ধি করতে পারবেন।

সফটওয়্যার প্রতিনিয়তই আপডেট হয় এবং নতুন ফিচারে সমৃদ্ধ হয়ে থাকে। প্রশিক্ষকেরা আপনাকে যেই টুলসের কাজ শিখিয়েছে এবং সফটওয়্যারের যেই ফিচারগুলো সম্পর্কে অবগত করেছে, কিছুদিন পর আপনি কাজ করতে গিয়ে হয়ত সফটওয়্যারের টুলস বা ফিচারে ভিন্নতা দেখতে পারবেন। সফটওয়্যারের নতুন আপডেটের ফলে এমন হয়।

পড়ার সাজেশনঃ
অনলাইনে ইনকাম বাংলাদেশী সাইট
ফ্রিল্যান্সিং কি হালাল নাকি হারাম?

আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, গ্রাফিক্স ডিজাইন করার জন্য মার্কেটে অগণিত সফটওয়্যার রয়েছে। একজন গ্রাফিক ডিজাইনার ‘গ্রাফিক্স ডিজাইন’ করার জন্য সব ধরণের সফটওয়্যার ব্যবহার করে না। করাটাও দুঃসাধ্য ব্যাপার।

মার্কেটে থাকা প্রত্যেকটা সফটওয়্যারেই নিজস্ব কিছু অতিরিক্ত টুলস বা ফিচার থাকে। এই দৃষ্টিকোণ থেকে প্রত্যেকটা সফটওয়্যারই গ্রাফিক্স ডিজাইনের জন্য পার্ফেক্ট। সফটওয়ার ভিন্নতায় অতিরিক্ত টুলস বা ফিচারের কারণে প্রত্যেক ডিজাইনারের মধ্যে একটি ইউনিকনেস থাকে।

গ্রাফিক্স ডিজাইনের যে কোন সফটওয়্যারের কাজ আপনি শিখেননা কেন, আপনি যদি মনোযোগ সহকারে চেষ্টা করেন, তবে নতুন হিসেবে কাজ শেখার শুরু থেকে প্রফেশনালি কাজ করার মতো স্কিল ডেভেলপ করতে ২/৩ মাসের বেশী সময় লাগবে না।

তবে আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার ক্ষেত্রে যত বেশী সময় দেবেন এবং অনুশীলন করবেন তত বেশীই আপনার কাজে ক্রিয়েটেবিটি তৈরি হবে।

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কত দিন লাগে আশাকরি তার উত্তর পেয়েছেন। অনেকেই প্রশ্ন করেন যে, গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার জন্য কোন কোন সফটওয়্যার শিখতে হবে। চলুন জেনে নেওয়া যাক।

গ্রাফিক্স ডিজাইন করার জন্য কোন কোন সফটওয়্যার শিখতে হবে?

গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কতদিন লাগবে
গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কতদিন লাগবে?

মার্কেটে হাজারো রকমের গ্রাফিক্স ডিজাইন করার সফটওয়্যার রয়েছে। মানুষের চাহিদার ভিত্তিতে সফটওয়্যার নির্ধারণ করা হয়। তাছাড়া, দেশভেদে এবং মার্কেটিং পারপাসে একেক দেশে একেক রকমের সফটওয়্যারের ছড়াছড়ি দেখা যায়।

এমন কিছু সফটওয়্যারের নাম আমি উল্লেখ করবো, যেই সফটওয়্যার গুলো পৃথিবীব্যাপী জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছে।

প্রথমেই আপনাকে গ্রাফিক্স ডিজাইন ক্যাটাগরি সিলেক্ট করতে হবে। অর্থাৎ, আপনি স্টিল ইমেজ গ্রাফিক্স শিখতে আগ্রহী নাকি মোশন গ্রাফিক্স শিখতে আগ্রহী? আগ্রহের উপর ভিত্তি করেই সফটওয়্যার বাছাই করতে হবে।

স্টিল ইমেজ গ্রাফিক্স -এর ব্যবহৃত সফটওয়্যার

আমাদের দেশে ’স্টিল ইমেজ গ্রাফিক্স ডিজাইন’ শেখার জন্য সাধারণত যেই সফটওয়্যারগুলো ব্যবহার করা হয়, সেগুলো হলোঃ Adobe Photoshop, Adobe InDesign, CorelDraw Graphics Suite, Adobe Illustrator, Xara Designer Pro X ইত্যাদি। তবে এগুলোর মাঝে বহুল ব্যবহৃত এবং সবচেয়ে জনপ্রিয় হলো Adobe Photoshop এবং Adobe Illustrator.

আপনি যদি Adobe Photoshop এবং Adobe Illustrator এই দুটি সফটওয়্যারের কাজ ভালো করে শিখে নিতে পারেন, তবে আশা করা যায়, স্টিল ইমেজ গ্রাফিক্স ডিজাইনে আপনার জন্য অফলাইন অথবা অনলাইনে চমৎকার একটি ক্যারিয়ার বিল্ড করার সুযোগ পাবেন।

পড়ার সাজেশনঃ
লেখালেখি করে আয় করার নিয়ম
কিভাবে ব্লগিং শুরু করবো?

অনেকেই নতুন করে প্রশ্ন করতে পারেন, স্টিল ইমেজ গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কত দিন লাগে? উত্তরঃ যে কোন শ্রেণী-পেশার মানুষের জন্য স্টিল ইমেজ গ্রাফিক্স শিখতে -৩ মাস লাগতে পারে।

মোশান গ্রাফিক্স -এর ব্যবহৃত সফটওয়্যার

আমাদের দেশে ’মোশন গ্রাফিক্স’ শেখার জন্য যেই সফটওয়্যারগুলো ব্যবহার করা হয়, সেগুলো হলোঃ Adobe After Effects, Cinema 4D, Mocha Pro, Maya ইত্যাদি। অনেকেই Adobe Photoshop এবং Adobe Illustrator সফটওয়্যারকেও মোশন গ্রাফিক্স সফটওয়্যার এর তালিকায় রাখে। তবে মোশন গ্রাফিক্স এর জন্য বহুল ব্যবহৃত এবং জনপ্রিয় সফটওয়্যার হলো হলো Adobe After Effects এবং Cinema 4D.

আপনি যদি Adobe After Effects এবং Cinema 4D. এই দুটি সফটওয়্যার ভালো করে শিখে নিতে পারেন, তবে অফলাইন অথবা অনলাইনে কাজ করে আপনার জন্য চমৎকার একটি ক্যারিয়ার বিল্ড করার সুযোগ পাবেন।

মোশন গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কত দিন লাগে বা লাগবে? উত্তরঃ যে কোন শ্রেণী-পেশার মানুষের জন্য মোশন গ্রাফিক্স শিখতে ২ -৬ মাস লাগতে পারে।

গুরুত্বপূর্ণ কিছু কথাঃ

প্রিয় পাঠক, আমি চেষ্টা করেছি “গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কতদিন লাগবে” এই পশ্নের যথাযথ উত্তর দেওয়ার জন্যে।

গ্রাফিক্স ডিজাইন অনেক বড় একটি ইন্ডাস্ট্রি। যেটার মাধ্যমে বছরে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলারের বাণিজ্য হয়ে থাকে। এই ইন্ডাস্ট্রির আন্ডারে লক্ষ লক্ষ মানুষ জীবিকা অর্জন করে। আমাদের দেশেরও হাজার হাজার মানুষ আছে, যারা গ্রাফিক্স ডিজাইনের উপর কাজ করে নিজেদের ক্যারিয়ার গড়েছে।

আমিও সাধারণত গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ করে থাকি। আমার একটি অভিজ্ঞতা হলো গ্রাফিক্স ডিজাইন এমন একটি বিষয়, যা আপনি চাইলে মাসেই মোটামুটি শিখতে পারবেন। তবে মাস শেখার পর আপনার যেই অভিজ্ঞতা হবে, তা দিয়ে প্রফেশনালি কোন কাজ করতে পারবেন না।

কারণ, গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার পর পরই আপনার এমন দক্ষতা হবে না যে, আপনি সব ধরণের ডিজাইন খুব চমৎকার ভাবেই করতে পারবেন। এজন্য গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার পর আপনাকে অনেক দিন একা একা চর্চা করতেই হবে। তাহলেই আপনি ডিজাইন সুন্দর করতে পারবেন।

পড়ার সাজেশনঃ
ঘরে বসে মোবাইলে আয় করার সেরা উপায়
ইউটিউব থেকে আয় করার নিয়ম

আপনি যদি ’স্টিল ইমেজ গ্রাফিক্স ডিজাইন’ শিখতে চান তবে Adobe Photoshop এবং Adobe Illustrator এই দুটি সফটওয়্যারের কাজ শিখে নিতে পারেন। আর যদি ‘মোশন গ্রাফিক্স ডিজাইন’ শিখতে চান তবে Adobe After Effects এবং Cinema 4D শিখে নিতে পারেন।

এগুলো ছাড়াও গ্রাফিক্স ডিজাইন করার মতো অনেক সফটওয়্যার ইন্টারনেটে পাওয়া যায়। আপনি আপনার রুচি মতো সফটওয়্যারের কাজ শিখতে পারেন।

আশা করছি ‘গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে কত দিন লাগে’ এই বিষয়ে সুস্পষ্ট একটি ধারণা পেয়েছেন। যদি এই বিষয়ে আপনার কোনো মন্তব্য বা মতামত থাকে তবে অবশ্যই কমেন্ট করুন। সবাইকেই ধন্যবাদ। 

NAZIRUL ISLAM NAKIB

যত জ্ঞান-ধন করেছি অর্জন জীবনের প্রয়োজনে,
তার সবটুকুই বিলাতে চাই সৃষ্টির কল্যাণে।

9 comments